রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪

| ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

মানহানি মামলায় ৭৮৭ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিল ফক্স নিউজ

ডেস্ক অফিস

মানহানি মামলায় ৭৮৭ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিল ফক্স নিউজ

মার্কিন মিডিয়া জায়ান্ট ফক্স নিউজকে এবার ৭৮৭.৫ মিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে হলো। ভোটিং মেশিন প্রস্তুতকারী সংস্থা ডমিনিয়নকে এই ক্ষতিপূরণ দিয়ে তাদের মানহানি মামলা থেকে শেষ মুহূর্তে রেহাই পেয়েছে ফক্স নিউজ। ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ফক্স নিউজ দাবি করেছিল যে, ভোটিং মেশিনের মাধ্যমে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। এর জেরেই ফক্সের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিল ডমিনিয়ন।

কোম্পানিটির দাবি, ফক্স নিউজের মতো জনপ্রিয় গণমাধ্যম থেকে এমন খবর প্রচারের কারণে তাদের ব্যবসায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ জন্য তারা ১.৬ বিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ চায় ফক্স নিউজের কাছে। তবে শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবার মামলার শুনানির ঠিক আগ মুহূর্তে ডমিনিয়নের দাবিকৃত অর্থের প্রায় অর্ধেক ৭৮৭.৫ মার্কিন ডলার ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হয় ফক্স নিউজ। শেষ মুহূর্তে ক্ষতিপূরণ দেয়ার মাধ্যমে মামলা সমঝোতা হওয়ায় ফক্স নিউজের মালিক রুপার্ট মারডক, প্রধান নির্বাহী লেচলেন মারডকসহ অন্যান্য নির্বাহীদের আর আদালতে দাঁড়াতে হচ্ছে না। মার্কিন আইন অনুযায়ী মামলায় সমঝোতা হওয়ায় বিচারকের আর কোনো রায়ের প্রয়োজন নেই।

এই সমঝোতার ব্যাপারে ফক্স নিউজের তরফ থেকে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক মার্কিন ইতিহাসের সবচেয়ে প্রত্যাশিত মানহানির বিচারের একটি নিষ্পত্তি হয়েছে। যে প্রক্রিয়ায় এটি নিষ্পত্তি হয়েছে তাতে সাংবাদিকতার সর্বোচ্চ মানের প্রতি ফক্স নিউজের প্রতিশ্রুতির বিষয়টি উঠে এসেছে। বিবৃতিটিতে বিশদ বিবরণ না দিয়ে ফক্স নিউজ বলেছে, ডমিনিয়ন সম্পর্কে কিছু দাবি মিথ্যা বলে আদালতের রায় স্বীকার করে নিয়েছে তারা।

এদিকে ডমিনিয়নের প্রধান নির্বাহী জন পউলস এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ফক্স নিউজের মিথ্যা খবরের কারণে আমার কোম্পানির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সমঝোতা চুক্তিতে এ বিষয়টি স্বীকার করেছে ফক্স। ডোমিনিয়নের আইনজীবী জাস্টিন নেলসন সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে বলেছেন, মিথ্যার পরিণতি আছে। আবারো প্রমাণ হলো মিথ্যার পরাজয় অবশ্যম্ভাবী।

আর এ