রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪

| ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

প্রাইজবন্ডের ১১১তম ড্র, প্রথম পুরস্কার ০৬৪০৮৬৪

ষ্টাফ রিপোর্টার

প্রাইজবন্ডের ১১১তম ড্র, প্রথম পুরস্কার ০৬৪০৮৬৪

একশ টাকা মূল্যমানের প্রাইজবন্ডের ১১১তম ‘ড্র’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ছয় লাখ টাকার প্রথম পুরস্কার বিজয়ী সিরিজের ০৬৪০৮৬৪ নম্বর এবং তিন লাখ ২৫ হাজার টাকা বিজয়ী দ্বিতীয় হয়েছে ০৬৬৮১৯০ নম্বর।

রোববার (৩০ এপ্রিল) ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মো. সাবিরুল ইলসামের সভাপতিত্বে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ ড্র হয়।

একক সাধারণ পদ্ধতি বা প্রত্যেক সিরিজের একই নম্বরে প্রাইজবন্ডের ড্র পরিচালিত হয়। প্রচলনযোগ্য ১০০ টাকা মূল্যমানের মোট ৭৩ সিরিজের ৪৬টি সাধারণ সংখ্যা এবারে পুরস্কারের যোগ্য বলে বিবেচিত হয়েছে।

ড্রতে ০০০০০০১ থেকে ১০০০০০০ ক্রম সংখ্যার অন্তর্ভুক্ত বন্ডের ৪৬টি সাধারণ সংখ্যা পুরস্কারের জন্য ঘোষণা করা হয়েছে। একক সাধারণ পদ্ধতিতে (অর্থাৎ প্রতি সিরিজের জন্য একই নম্বর) এ ড্র পরিচালিত হয়।

বর্তমানে প্রচলনযোগ্য ১০০ টাকা মূল্যমানের ৭৩টি সিরিজ হলো— কক, কখ, কগ, কঘ, কঙ, কচ, কছ, কজ, কঝা, কএ, কট, কঠ, কড়, কঢ, কথ, কদ, কন, কপ, কফ, কব, কম, কল, কশ, কষ, কস, কহ, খক, খথ, খগ, খঘ, খঙ, খচ, খছ, খজ, খঝ, খঞ, খট, খঠ, খড়, খাঢ, খথ, খদ, খন, খপ, খফ, খব, খম, খল, খশ, খষ, খস, খহ, গক, গথ, গগ, গঘ, গঙ, গচ, গছ, গজ, গঝ, গঞ, গট, গঠ, গড়, গঢ, গথ, গদ, গন, গফ, গব, গম ও গল এ ড্রয়ের আওতাভুক্ত।

উপরের সিরিজসমূহের অন্তর্ভুক্ত ৪৬টি সাধারণ সংখ্যা পুরস্কারের যোগ্য বলে ঘোষিত হয়। নিম্নবর্ণিত সংখ্যার প্রাইজবন্ডগুলো সাধারণভাবে প্রত্যেক সিরিজের ক্ষেত্রে পুরস্কারের যোগ্য বলে বিবেচিত হয়।

তৃতীয় পুরস্কার বিজয়ী এক লাখ টাকার দুটি বিজয়ী সিরিজ ০০৮১৭৫৫ ও ০২৬৮১১০, চতুর্থ পুরস্কার বিজয়ী ৫০ হাজার টাকার দুটি সিরিজ ০৬৫৫৮২২ ও ০৯১৭৭৪২। এছাড়া পঞ্চম পুরস্কার বিজয়ী ৪০টি সংখ্যা ১০ হাজার টাকা করে পাবেন।

পঞ্চম পুরস্কারপ্রাপ্ত ৪০টি নম্বর

০০৯২২০১, ০১২৮৬৯৭, ০১২৮৮৮৫, ০১৩৮৮১৬, ০১৪০৫০৮, ০১৪৯৭৯৮, ০২৫০৪১৭, ০১৮২২১০, ০২৩৬১৫২, ০২৬৫৬৮৯, ০৩০০২৬৫, ০৩০৮১০১, ০৩১৫৯৮২, ০৩৪৭৬২৪, ০৪১২৭৯০, ০৪১৪৬৪৪, ০৪১৫৯৪৫, ০৪৩৫১২৮, ০৪৬৮৩৫১, ০৪৭৭২৪৫, ০৪৯৮৩৩০, ০৫১১৬৬৩, ০৫৩৩৬৫৯, ০৫৬২৬৭৮, ০৬০৬৩৮৯, ০৬০৯৩৬২, ০৬০৯৭৮৫, ০৬৪৪৪৬৯, ০৬৪৭৬৩৫, ০৬৫০৫৪১, ০৬৮৭৪১১, ০৭৮২৩৯০, ০৭৯২২৫৯, ০৮৬৩২১৯, ০৮৬৫০৬৩, ০৮৮৯৬৬৫, ০৯০০৪২৯, ০৯২২১৪০, ০৯৪১৯২৩ এবং ০৯৭১৯২৮।

ড্রয়ের নির্ধারিত তারিখ হতে ৬০ দিন আগে (বিক্রির তারিখ ধরে এবং ড্রয়ের তারিখ বাদ দিয়ে) যে সব প্রাইজবন্ড বিক্রি হয়েছে, সেগুলো ড্রয়ের আওতায় এসেছে।

আয়কর অধ্যাদেশ-১৯৮৪ এর ৫৫ ধারার নির্দেশনা অনুযায়ী, ১৯৯৯ সালের ১ জুলাই হতে প্রাইজবন্ডে পুরস্কারের অর্থ হতে ২০ শতাংশ হারে উৎসে কর কর্তন করার বিধান রয়েছে।

আর এ